ফুলকপির অনেক গুণ

বাজারে উঠছে শীতের সবজি। এর মধ্যে ফুলকপি ছোট-বড় সবারই প্রিয়। এতে রয়েছে প্রচুর আঁশ, যা পরিপাকতন্ত্রকে ভালো রাখতে সাহায্য করে। আরও আছে অ্যান্টি-ক্যানসার বা ক্যানসার নিরোধক উপাদান।
মূত্রথলির ক্যানসারের ঝুঁকি ৪০ শতাংশ কমে
যুক্তরাষ্ট্রের রসওয়েল পার্ক ক্যানসার ইনস্টিটিউটের চিকিৎসকেরা বলছেন, সপ্তাহে অন্তত তিনবার ফুলকপি খেতে হবে।
মলাশয় ক্যানসারের ঝুঁকি অর্ধেক কমে
সপ্তাহে প্রায় দুই পাউন্ড ফুলকপি এবং এ জাতীয় সবজি খেলে।
ফুলকপিতে আছে সালফোফেন নামের যৌগ, যা অস্টিওআর্থ্রাইটিস কমাতে সাহায্য করে।
গরুর দুধের চেয়েও প্রায় পাঁচ গুণ বেশি ক্যালসিয়াম।
রয়েছে ফুলকপিতে। ২০০ গুণ বেশি আয়রন।
ফুলকপি বেশি সেদ্ধ বা রান্না করলে এর সালফার যৌগ নষ্ট হয়ে যায় এবং এসব গুণাগুণ অনেকটাই বিনষ্ট হয়। সম্পূর্ণ গুণাগুণ পেতে ফুলকপিকে সামান্য ভাপ দিয়ে বা স্টিম করে খেতে হবে।

সূত্র: নিউট্রিশন অ্যান্ড ক্যানসার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *