ডায়াবেটিস ঝুঁকি কমাবেন কী করে

ডায়াবেটিস একটি বড় সমস্যা পৃথিবীজুড়ে, আর একে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে মনে হয় না। আন্তর্জাতিক ডায়াবেটিস ফেডারেশনের (আইডিএফ) একটি পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ৫৫২ মিলিয়ন লোক, অর্থাৎ ১০ জন প্রাপ্তবয়স্ক লোকের একজন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হবে ২০৩০ সালের মধ্যে। তা-ই যদি সত্যি হয়, তাহলে দুই দশকের মধ্যে টাইপ-২ ডায়াবেটিস নিয়ে ২০০ মিলিয়ন বা এরও বেশি লোক আসবে নতুন স্বাস্থ্য-সমস্যা হিসেবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমান, বর্তমানে এ রোগে ভুগছে ৩৪৬ মিলিয়ন লোক। ডায়াবেটিস বেড়ে যাওয়ার মূলে অন্তর্গত কারণ জীবনযাপনে পরিবর্তন, মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধি, অধিক হারে রোগনির্ণয় ও তরুণদের মধ্যে স্থূলতা বেড়ে যাওয়া।
ডায়াবেটিস ফেডারেশনের বক্তব্য, ইদানীং ডায়াবেটিস বাড়ছে শিশু ও তরুণদের মধ্যে। ২০ বছর আগে তরুণদের মধ্যে ডায়াবেটিস ছিল অত্যন্ত নগণ্য। তবে কথা হলো, টাইপ-২ ডায়াবেটিস পুরোপুরি প্রতিরোধযোগ্য; প্রয়োজন লাইফ স্টাইলে সামান্য পরিবর্তন। এ ক্ষেত্রে ব্যায়াম ও খাদ্যবিধি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আর একটি গবেষণায় দেখা গেছে, মাত্র পাঁচটি সহজ অভ্যাস চর্চা করলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমানো যায় ৮০ শতাংশ।

কী করা উচিত
 স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া: প্রচুর ফল ও শাকসবজি।
 সপ্তাহে অন্তত তিন দিন ২০ মিনিট করে ব্যায়াম।
 স্বাভাবিক দেহ ওজন বজায় রাখা (বিএমআই ১৮.৫-২৪.৯-এর মধ্যে রাখা)।
 ধূমপান করে থাকলে বর্জন করা।
 মদ্যপান করলে সামান্য করা। আমার পরামর্শ, মদ্যপান না করা।
এই পাঁচটি গাইডলাইন মেনে চললে ডায়াবেটিস প্রতিরোধ বেশ ফলপ্রসূ হয়। বিজ্ঞানীরা বলেন, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো দেহের স্বাভাবিক ওজন বজায় রাখা। স্বাভাবিক ওজনের পুরুষের ভারী ওজন বা স্থূল পুরুষের তুলনায় ডায়াবেটিস হওয়ার আশঙ্কা ৭০ শতাংশ কম। স্বাভাবিক ওজনের নারীদের ডায়াবেটিস হওয়ার আশঙ্কা ৭৮ শতাংশ কম।
আবার ভারী ওজনের লোক যদি একটি অভ্যাস চর্চা করে, যেমন—সপ্তাহে তিন দিন ব্যায়াম করে, তাতেও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি তাদের অনেক কমে।

অধ্যাপক শুভাগত চৌধুরীর কলম থেকে
পরিচালক, ল্যাবরেটরি সার্ভিসেস, বারডেম হাসপাতাল, সাম্মানিক অধ্যাপক ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজ, ঢাকা।
সূত্র: দৈনিক প্রথম আলো, মার্চ ০৭, ২০১২

12 comments

  1. ডায়েবেটিসের ঔষূধ

    HUMULINR 70/30 এবং ANSULINR 30/70 এর মধ্যে কোন পার্থক্য আছে কি?

    1. সমগোত্রীয় ঔষধগুলো হলো- HumuLIN R, NovoLIN R, NovoLIN R Innolet, NovoLIN R PenFill, ReliOn/NovoLIN R.
      “ANSULIN R” শব্দটা বুঝলাম না। আপনি “insulin” বুঝাতে চেয়েছেন?
      উপরোক্ত সবগুলোই insulin regular.

  2. Amar age 27 , height 5″3 inch , weight 66 kg .Amar blood glucose level 8.3 mmml .Breakfast korar dui gontah por ai test kora hoy.but amar urine report – nil. Doctor boleche amar diabetes hoyese .Ata ki tik .please amake bole din

    1. ব্লাডে সুগার লেভেল 8.3 mmol/L মানে A1C লেভেল ৭%। এই লেভেল ৫.৭% থেকে ৬.৪% হলে ডায়াবেটিসের পূর্বাবস্থা এবং ৬.৫%-এর বেশি হলেই ডায়াবেটিস হিসাবে গণ্য করা হয়। প্রস্রাবে সাধারণত গ্লুকোজ লেভেল নেগেটিভ থাকে।
      আপনার উচ্চতা অনুসারে ওজন যদি ঠিক থাকে, নিয়মিত ব্যায়াম করেন, কার্ব জাতীয় খাবার কমিয়ে দেন, তাহলে এখনি চিন্তার কিছু থাকবে না।

  3. আমার মায়ের ডায়বেটিস এতদিন আমরা যানতাম না কাল হোমিও ডাঃ এর কাছে যাওয়ার পর ডাঃ পরিক্ষা করে দেখেন যে আম্মার ডায়বেটিস ।ডাঃ বলল ওনার ডায় বে টি স অনেক বেশি হয়েগেছে,তাই ওজন কমানোর জন্য একটা ওষুধ দিলো। এখনও প্রথম পর্যায় এখন কি ডায়বেটিস একেবারে নিরাময় করা সম্ভব হবেনা?আর কি করলে এই ঝুঁকি এড়ানো যাবে।আম্মার ওজন ও অনেক বেশি রাত্রে খায়না ।সকালে শুধু রুটি খায়।দুপুরে ও খুব অল্প পরিমান খায় তারপর ও কেন অনার ওজন কমে না জানিনা ।আম্মার বয়স ৩৬ ।এখন কি করব দয়া করে বলবেন কি?

    1. অবশ্যই নিরাময় সম্ভব। তবে এজন্য লাইফস্টাইলে অনেক পরিবর্তন আনতে হবে। যেসব খাবার খাওয়ার খুব তাড়াতাড়ি গ্লুকোজ হয়ে রক্তে মিশে যায়, সেসব খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। আর নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে। হাঁটা যায়, দৌড়ানো যায়, সাঁতার কাটা যায়। এতে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমে যাবে।
      এছাড়া একবারে পেট ভরে খাওয়া যাবে না। খাবার ভাগ করে, অল্প অল্প করে ঘনঘন খেতে হবে। সাদা ভাত, ময়দা আর সুগার জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলতে হবে।

  4. করলা ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রন রাখতে সাহায্য করে কিনা ?

    1. হ্যাঁ, এটা রক্তের সুগার লেভেল ঠিক রাখতে উপকারী।

      1. প্রশ্ন ছিল – করলা ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রন রাখতে সাহায্য করে কিনা ।
        উত্তর পেলাম – হ্যাঁ, এটা রক্তের সুগার লেভেল ঠিক রাখতে উপকারী।
        উত্তর টি কনো ডাঃ দিল কিনা? দিলে কোন ডাঃ দিয়েছে জানতে চাই ।
        কি ভাবে খেলে উপকার হবে ?

      2. এটি একটি সাধারণ জ্ঞানের বিষয়।
        তরকারীতে খেলেই ভালো, কেননা ভাজি করলে তেল বেশি লাগে।

    1. খুব ভালো না হলেও ভালোর মধ্যে। আরেকটু কমিয়ে রাখার চেষ্টা করবেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *