ধূমপান ছাড়তে চান?

ধূমপানে বিষপান। কিন্তু তার পরও জেনেশুনে এই বিষপান করি অনেকেই।আমরা আমাদের অভ্যেসের বলয় থেকে বেরিয়ে আসতে পারি না। মনে হয়, আজ থাক, কাল থেকে ছাড়ব। ভাবি, না থাক, পরশু। পরশু এলেভাবি, পরের দিন ছেড়ে দেব। তারপর সেই দিন আসে। মনে হয়,যাক না আর কয়েক দিন। সেই দিন কোনো দিনই আসে না। কিন্তু শুরুটা করতে হবে আজ থেকেই। ধূমপান নামক বিষপানের বদ-অভ্যাসটিও যায় না যতক্ষণ না কোনো জটিল রোগ বাসা বাঁধে। যাঁরা ধূমপান ছাড়তে চান তাঁদের জন্য—
 আজই ছাড়ুন। এখুনি ছাড়ুন। নিজ সংকল্পে অটলথাকুন। মনে রাখবেন, ধূমপান ছাড়া আর না-ছাড়ার মধ্যেব্যবধান সিগারেটে শুধু একটিমাত্র টান।
 সবার সহযোগিতা নিন। পরিবার, বন্ধুবান্ধব, আত্মীয়স্বজন—সবাইকে পরিষ্কার জানিয়ে দিন, আপনি ধূমপান ছেড়েছেন। কেউ যেন আপনাকে সিগারেট অফার না করে।
 সব সময়সচলথাকুন।কর্মব্যস্ত থাকুন। অলস বসে থাকবেন না। কারণ অলস সময়টাতেই ধূমপান করতে বেশিমন চাইবে।
 ধূমপান ছাড়ার প্রথম কয়েক দিন আপনার কিছুটা শরীর খারাপ লাগতে পারে। খাবার হজম হচ্ছে না বা কোষ্ঠকাঠিন্য হচ্ছে—এমন লাগতে পারে। এটাকে বলা হয়উইথড্রল সিম্পটম।আপনি এসব ব্যাপারে পুরোপুরি ইতিবাচক থাকুন। এসব সাময়িক সমস্যাকে একদম পাত্তা না দিয়ে নিজ সংকল্পে অটল থাকুন।
 মানসিক চাপ বা স্ট্রেস এড়িয়ে চলুন। বেশির ভাগ লোককেই দেখেছি, তাঁরা মানসিক চাপ থেকে বাঁচতে ধূমপানের আশ্রয় নেন। মানসিক চাপ যখন আসবে তখন চোখ বন্ধ করে কায়মনোবাক্যে প্রার্থনা করুন।মেডিটেশন করতে পারেন।
 ধীরে ধীরে গভীরভাবে কিছুক্ষণ দম নেওয়া ও ছাড়ার অভ্যেস করুন।
 আপনার নিজস্ব খরচের দিকে তাকান।ভাবুন, ধূমপান ত্যাগের ফলে প্রতিদিন কতগুলো টাকা বেঁচে যাচ্ছে। সেই টাকাগুলো গুনুন। ভাবুন, এভাবে প্রতিদিন এই পরিমাণ টাকা বেঁচে গেলে মাসে কত টাকা বাঁচছে। মাস শেষে সেই পরিমাণ টাকা দিয়েনিজের জন্য কোনো শৌখিন জিনিস কিনুন অথবা প্রিয়জনকে নিয়ে কোথাও ঘুরে আসুন। ধরে নিন, ধূমপান ত্যাগের জন্য এটা আপনার পুরস্কার।
 মনে রাখবেন, ধূমপানমুক্ত প্রতিটি দিন আপনার স্বাস্থ্য, পরিবার ও আপনার পকেটের জন্য নিয়ে আসবে সুখবর।
ধূমপানের বিপক্ষে যুক্তি আছে হাজারটি। সপক্ষে যুক্তি নেই একটিও। অতএব, আসুন না, আমরা সবাই ধূমপান ছেড়ে গড়ে তুলি একটি মাদকমুক্ত সমাজ।

এস এম নওশের
মেডিকেল অফিসার, স্বেচ্ছা রক্তদান কার্যক্রম, কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন
সূত্র: দৈনিক প্রথম আলো, মে ০৫, ২০১০

4 comments

  1. আমার প্রায় বয়স যখন ১৩ তখন থেকে এই বদ অভ্যাস শুরু হয়।আমার বয়স এখন ২৫।আমি এ পর্যন্ত ৬০-৭০বার{প্রায়,ধারনা অনুযায়ী} চেষ্টা করেছি,কিন্তু পারেনি।আমার ছাড়ার জন্য ইচ্ছে করে ।কিন্তু তারপর ও পারিনি।আপনি যে টিপস গুলো বলেছেন তা আমি কেউ থেকে শিখিনি।এই অভ্যাস ছাড়ার বিষয় নিয়ে সার্চ করতে গিয়ে আপনার এই পোস্ট পেলাম। যা আগে আমি নিজ থেকে নিজেই করেছি।কিন্তু আমার এই এত প্রবল ইছা থাকার পড়ে ও আমি ছাড়তে পারছি না।যখন এর জন্য চেস্টা করি, কিছুদিন দূরে থাকলে ও পরে আবার নিজের কাছে নিজে হেরে যাই।যখন কিছু দিন দূরে থাকি ,তখন কিছু side affect এ ভুগি।যেমন হাটতে গেলে পা বেকে যায়,রোদে থাকলে মাথা ঘুরায়,কথা গুছিয়ে বলতে সম্যসা হয়,আর ও অনেক কিছু সমস্যা হয়।কিন্তু শরীর খুব ভালো লাগে।আমি সিগারেট ছাড়া নেশা জাতীয় অন্য কিছু সেবন করি না এবং পচ্ছন্দ করি ও না। আপনার কাছে আমার প্রশ্ন হলো ,আমি কি ভাবে সিগারেট মত এই বাজে অভ্যাস পুরোপরি ছাড়তে পারি।আমার শরীরে যে নিকোটিন এর যে চাহিদা ও প্রভাব টা রয়েছে তা কি ভাবে পুরোপুরি রোধ করা যায়??? আমার নিজের একান্ত চেস্টার ফলে আগের চেয়ে অনেক কমাতে পেরেছি।এখন প্রতিদিন বড় জোর ৭-৮ টা খাই।কিন্তু আমি একেবারে ছাড়তে চাই।আমার জন্য আপনার মুল্যবান উওর যদি দিতেন????????

  2. আমার প্রায় বয়স যখন ১৩ তখন থেকে এই বদ অভ্যাস শুরু হয়।আমার বয়স এখন ৩৫ বছর
    ।আমি এ পর্যন্ত ৬০-৭০বার{প্রায়,ধারনা অনুযায়ী} চেষ্টা করেছি,কিন্তু পারেনি।আমার ছাড়ার জন্য ইচ্ছে করে ।কিন্তু তারপর ও পারিনি।আপনি যে টিপস গুলো বলেছেন তা আমি কেউ থেকে শিখিনি।এই অভ্যাস ছাড়ার বিষয় নিয়ে সার্চ করতে গিয়ে আপনার এই পোস্ট পেলাম। যা আগে আমি নিজ থেকে নিজেই করেছি।কিন্তু আমার এই এত প্রবল ইছা থাকার পড়ে ও আমি ছাড়তে পারছি না।যখন এর জন্য চেস্টা করি, কিছুদিন দূরে থাকলে ও পরে আবার নিজের কাছে নিজে হেরে যাই।যখন কিছু দিন দূরে থাকি ,তখন কিছু side affect এ ভুগি।যেমন হাটতে গেলে পা বেকে যায়,রোদে থাকলে মাথা ঘুরায়,কথা গুছিয়ে বলতে সম্যসা হয়,আর ও অনেক কিছু সমস্যা হয়।কিন্তু শরীর খুব ভালো লাগে।আমি সিগারেট ছাড়া নেশা জাতীয় অন্য কিছু সেবন করি না এবং পচ্ছন্দ করি ও না। আপনার কাছে আমার প্রশ্ন হলো ,আমি কি ভাবে সিগারেট মত এই বাজে অভ্যাস পুরোপরি ছাড়তে পারি।আমার শরীরে যে নিকোটিন এর যে চাহিদা ও প্রভাব টা রয়েছে তা কি ভাবে পুরোপুরি রোধ করা যায়??? আমার নিজের একান্ত চেস্টার ফলে আগের চেয়ে অনেক কমাতে পেরেছি।এখন প্রতিদিন বড় জোর ৭-৮ টা খাই।কিন্তু আমি একেবারে ছাড়তে চাই।

    1. তুষার ভাই , আপনি আমার মত করে দেখতে পারেন, কিরা, কছম, কোন ধরনের চেষ্টা , কোন কিছুই না , (স্রেফ এখন থেকে আর সিগারেটে টান দিবনা)
      যেমন আমি পেরেছি, ২০০৫ সাল থেকে ছারছি, এখন ও বহাল আছে, ধন্যবাদ আপনাকে,

  3. ৭..৮টা ধুমপান করা আপনার কম হয়েছে।তাই একটু বেশি ৭০..৮০টা করুন।দেখবেন এমনিতে অনিহা আসবে।কম খান তো অতো সহজেই রুচি বদলাবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *