চঞ্চল মাহমুদের ‘হূদয়ে বাংলাদেশ’

ক্যামেরা হাতে পরিচিত, প্রিয়মুখ চঞ্চল মাহমুদ। এক যুগ পর আবার তাঁর আলোকচিত্র প্রদর্শনী হলো। তবে ফ্যাশন ফটোগ্রাফি নয়। দেশের মানুষ, প্রকৃতি নিয়েই তাঁর ‘হূদয়ে বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন হলো ১৯ মার্চ ঢাকার বেঙ্গল শিল্পালয়ে। এ দিন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আলী যাকের। তিনি বলেন, ‘চঞ্চল মাহমুদের দেখার চোখ অন্য রকম। সাধারণের মধ্যে থেকে এমন সব অসাধারণ বিষয়বস্তু দেখেন, যা সত্যিই বিচিত্র।’ পুরো প্রদর্শনীতে নানা ফুলের ছবিগুলো বেশ নজর কেড়েছে। নাম না-জানা কত ফুল। বাদ যায়নি কাশবনও। আলোকচিত্রী তুলে এনেছেন শেকলে বাঁধা শিশুর কান্না, শিশুদের দুরন্ত শৈশব, হাসিমাখা মুখ। একুশে ফেব্রুয়ারি, স্বাধীনতা দিবস ও বিজয় দিবসে সবার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের ছবিগুলো ভিন্ন আঙ্গিকে উপস্থাপন করা হয়েছে। গ্রামবাংলার প্রাকৃতিক দৃশ্যের ছবিগুলো যেন সেখানেই ফিরে নিয়ে যাচ্ছিল দর্শকদের। এ রকম ১৩৩টি আলোকচিত্র নিয়ে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। চঞ্চল মাহমুদ জানান, ‘এ প্রদর্শনীতে কোনো কষ্টের ছবি রাখতে চাইনি। ১২ বছর পর প্রদর্শনী করলাম। আমার ছবি মানেই অনেকে মনে করতেন ফ্যাশন বা মডেল আলোকচিত্র। এ ধারণা ভাঙতেই এ প্রদর্শনীর আয়োজন। দুই বছর পর কম্পোজিশনের ওপর আরেকটি প্রদর্শনীর আয়োজন করার ইচ্ছা আছে।’ প্রদর্শনীতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী কনকচাঁপা চাকমা। এ ছাড়া অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, ফ্যাশন ডিজাইনার বিবি রাসেল, রূপ-বিশেষজ্ঞ কানিজ আলমাস খান, সংগীতশিল্পী ফাহমিদা নবী, সামিনা চৌধুরী, মডেল সাদিয়া ইসলাম প্রমুখ। প্রদর্শনী চলবে ৩০ মার্চ পর্যন্ত। প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত প্রদর্শনী খোলা থাকবে। এদিকে চঞ্চল মাহমুদ ফটোগ্রাফি স্কুল ২ এপ্রিল থেকে এক মাসব্যাপী ‘স্টুডিও এবং মডেল ফটোগ্রাফি’ কোর্সের আয়োজন করছে।

তৌহিদা শিরোপা
সূত্র: দৈনিক প্রথম আলো, মার্চ ২৩, ২০১০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *