অনেকে ভাবেন অল্প বয়সে উচ্চ রক্তচাপ হতে পারে না। এটা বৃদ্ধদের রোগ। আসলে তা নয়। নানা কারণেই অল্প বয়সে উচ্চ রক্তচাপ দেখা দিতে পারে। ইদানীং অপেক্ষাকৃত কম বয়সে, ৩০ থেকে ৪০ বছর বয়সের মধ্যেই উচ্চ রক্তচাপ দেখা দিচ্ছে। এ জন্য নানা বদ অভ্যাসও দায়ী। অতি লবণযুক্ত ফাস্ট ফুড, প্রক্রিয়াজাত খাবার, ওজন বৃদ্ধি ও কায়িক শ্রমের অভাব অল্পবয়সী মানুষের মধ্যে উচ্চ রক্তচাপের প্রবণতা বাড়িয়ে দিচ্ছে। আবার বিভিন্ন ধরনের রোগের কারণে উচ্চ রক্তচাপ হতে পারে। সেটা শিশু-কিশোরদের মধ্যেও দেখা দিতে পারে।

অল্প বয়সে উচ্চ রক্তচাপ দেখা দেওয়া বিচিত্র নয়। কিন্তু এ ক্ষেত্রে অন্তর্নিহিত কোনো রোগ বা কারণ আছে কি না, তা খুঁজে দেখা উচিত। কম বয়সে হঠাৎ রক্তচাপ বাড়তি পাওয়া গেলে কিছু বিষয় মাথায় আনা দরকার। যেমন:

*  বংশগত কিডনি রোগ, কিডনির প্রদাহ, ত্রুটিপূর্ণ কিডনি, কিডনির রক্তনালির সমস্যা বা কিডনির টিউমার হলে রক্তচাপ অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে পারে।

* শরীরের প্রধান রক্তনালিতে সংকোচন বা কোনো সমস্যা, যা সাধারণত জন্মগত হয়ে থাকে

* হরমোনজনিত সমস্যা (যেমন-থাইরয়েড, অ্যাড্রিনাল বা পিটুইটারি গ্রন্থির সমস্যা)

* মস্তিষ্কের টিউমার বা জন্মগত ত্রুটি

* মাদক সেবন

* লুপাস, রক্তনালির প্রদাহ (ভাসকুলাইটিস) ইত্যাদি

*  দীর্ঘদিন স্টেরয়েড জাতীয় ওষুধ সেবন

যেহেতু উচ্চ রক্তচাপের তেমন কোনো উপসর্গ নেই আর অল্প বয়সে কেউ নিয়মিত রক্তচাপ মাপে না, তাই অনেক সময়ই এই সমস্যা ধরা পড়ে না। পরে হার্ট ফেইলিওর, স্ট্রোক বা কিডনি সমস্যা ধরা পড়ে। ছোটদের কিডনিপ্রদাহ উচ্চ রক্তচাপের প্রধানতম কারণ। শিশুদের লালচে প্রস্রাব, প্রস্রাবের পরিমাণ কমে যাওয়া, শরীরে পানি আসা এই সমস্যার লক্ষণ। আবার থাইরয়েডের সমস্যা কিশোরী, তরুণীদের মধ্যে বেশি দেখা যায়। হঠাৎ মুটিয়ে যাওয়া, মাসিকে সমস্যা, গর্ভপাত ইত্যাদি হলে অল্প বয়সে থাইরয়েডের সমস্যার সঙ্গে উচ্চ রক্তচাপ থাকা অস্বাভাবিক নয়।

ডা. শরদিন্দু শেখর রায়
হৃদ্‌রোগ বিশেষজ্ঞ, জাতীয় হৃদ্‌রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল
সোর্স – প্রথম আলো, ০৯ অক্টোবর ২০১৭