সমস্যাঃ আমার বয়স ২১ বছর। সম্মান শেষ বর্ষের ছাত্র। প্রায়ই আমার পিঠের ডান দিকে ব্যথা এবং পরে বাঁ দিকেও ব্যথা হয়। কয়েক মাস ধরে পিঠে কোনো ব্যথা নেই কিন্তু ঘাড়ে ব্যথা হচ্ছে। ওপরে বা ডানে-বাঁয়ে তাকানোর সময়ও ব্যথা হয়। প্রথম দিকে কম হলেও বর্তমানে বেশ ব্যথা হচ্ছে। শীতকালে মাঝেমধ্যে আমার নাকবন্ধ ভাব হয়। এ সমস্যার জন্য আমি একজন মেডিসিন ও স্মায়ুরোগ বিশেষজ্ঞকে দেখালে তিনি আমাকে কিছু ব্যায়াম শিখিয়ে দেন। ব্যথার জন্য বেশ কিছু ওষুধও সেবনের পরামর্শ দেন। নাকের স্প্রে ও ড্রপ দেন। এগুলো ব্যবহারে সাময়িকভাবে ব্যথা কমলেও এখন সমস্যা আরও বেড়ে গেছে।
মাসরুর করিম
ঠিকানা প্রকাশে অনিচ্ছুক

পরামর্শঃ এ বয়সে যেসব কারণে ঘাড় ব্যথা হতে পারে তার মধ্যে রয়েছে হাঁটা-চলা, শোয়া-বসায় অনিয়ম, শরীরে কোনো আঘাত পাওয়া ইত্যাদি। আপাতত ঘাড়ে হালকা গরমপানির সেঁক দিয়ে দেখুন। পড়াশোনা করার সময় চেয়ার-টেবিলে বসুন। শুয়ে পড়বেন না। বিশ্রাম নেওয়া বা ঘুমের সময় পাতলা বালিশ ব্যবহার করুন।

অল্প বয়সে ঘাড়ের ব্যথা সাধারণত ক্ষয়জনিত রোগ স্পনডাইলোসিসের কারণে হয় না; বরং একটানা বেশি সময় ধরে সামনে ঝুঁকে কাজ করা, কম্পিউটার ব্যবহার করা, বই পড়া, শুয়ে টিভি দেখা, খুব বেশি গরম বা ঠান্ডা খাওয়া, শীতাতপ-নিয়ন্ত্রক যন্ত্রের বাতাসে ঘাম শুকানো বা অন্যান্য কারণে ঠান্ডা লাগলে ঘাড়ের পেশিগুলো শক্ত হয়ে যেতে পারে।

ফলে মেরুদণ্ডের স্বাভাবিক বাঁক নষ্ট হয়ে স্মায়ুর ওপর চাপ পড়তে পারে। উঠতি বয়সে সব সময় টেবিল-চেয়ারে বসে পড়াশোনা করা দরকার। টিভি দেখলেও বসে দেখুন। একটানা বেশি সময় ধরে কম্পিউটার ব্যবহার করবেন না। সাঁতার ও অন্যান্য ব্যায়াম করার অভ্যাস করুন। ঘন ঘন সর্দি-কাশি বা ঠান্ডা লাগলে এর চিকিৎসা নিশ্চিত করুন। প্রয়োজনে অবশ্যই ফিজিক্যাল বা নিউরো মেডিসিন বিশেষজ্ঞের সঙ্গে দেখা করুন।

পরামর্শ দিয়েছেনঃ ডা· এ কে এম সালেক
উৎসঃ দৈনিক প্রথম আলো

Share This
%d bloggers like this: