প্রশ্নঃ কন্টাক্ট লেন্স কি চোখের জন্যে ক্ষতিকর?

উত্তরঃ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে দিয়ে পরীক্ষা করে এবং নিয়ম মেনে চললে কন্টাক্ট লেন্স চোখের জন্য ক্ষতিকর নয়।

আমাদের দেশে অনেকেই আছেন উপযুক্ত পরীক্ষা না করেই চশমার দোকান থেকে কন্টাক্ট লেন্স নিয়ে ব্যবহার করেন এবং অনেক সময় নানা সমস্যা নিয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শের জন্য আসেন। ধরা যাক একজন রোগীর চোখের পানির পরিমাণ কম। তাকে পরীক্ষা না করেই দোকান থেকে কন্টাক্ট লেন্স দেয়া হলো। ২/১ দিনের মধ্যেই ঐ রোগীর চোখে কর্নিয়ায় আলসার বা ক্ষত হয়ে যাবে এবং সঠিক চিকিৎসা না হলে দৃষ্টির ক্ষতি হয়ে যেতে পারে।

আজকাল অনেক উচ্চ পানি ধারণক্ষমতাসহ কন্টাক্ট লেন্স পাওয়া যায়, যা চোখের জন্য আরামদায়ক। এছাড়া কিছু ডিসপোজঅ্যাবল কন্টাক্ট লেন্স আছে যা মাত্র ১-২ মাস ব্যবহার করে ফেলে দেয়া হয়। যার ফলে চোখের কোন জটিলতা হয় না বললেই চলে।

প্রশ্নঃ কন্টাক্ট লেন্স একবারে কতদিন চোখে রাখা যায়?

উত্তরঃ সাধারণ কন্টাক্ট লেন্সগুলো দিনের বেলা চোখে পরা হয় এবং রাত্রে ঘুমের পূর্বে নির্দিষ্ট কেসের মধ্যে খুলে রাখা হয়। লেন্সের প্রকারভেদে ১২-১৬ ঘণ্টা পর্যন্ত এই লেন্স পরে থাকা যায়।

এক্সটেন্ডেড ওয়ার কন্টাক্ট লেন্স (ঋর্সণভঢণঢ ষণটর ডমর্ভটর্ড ফণভ্র) নামে এক ধরনের কন্টাক্ট লেন্স পাওয়া যায়- যাতে পানি ধারণক্ষমতা অনেক বেশি থাকে। এসব কন্টাক্ট লেন্স একবার চোখে লাগিয়ে ৭-১৪ দিন পর্যন্ত রাখা যায়। এর বেশি রাখলে চোখের ক্ষতি হবার সম্ভাবনা থাকে।

১-২ সপ্তাহ পর ঐ লেন্সগুলো ফেলে দিতে হয় বলে বছরে অনেক সংখ্যক কন্টাক্ট লেন্সের প্রয়োজন হয় এবং লেন্সের মূল্যও অনেক বেড়ে যায়। আমাদের দেশে এই জাতীয় লেন্সের ব্যবহার অনেকটা সীমিত।

চোখের স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করলে ডেইলি ওয়ার লেন্স বা দৈনিক রাত্রে খুলে রাখার লেন্সই ভালো।

প্রশ্নঃ রঙিন কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহারে চোখে কোন অসুবিধা হয় কি?

উত্তরঃ সাধারণ কন্টাক্ট লেন্সের উপরে এক ধরনের রং করে রঙিন কন্টাক্ট লেন্স তৈরী করা হয়ে থাকে। যেহেতু রং একটি কেমিক্যাল, এজন্য অনেকের চোখে ঐ রং-এর জন্য এলার্জি বা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হতে পারে।

যারা সৌন্দর্য বাড়াবার জন্য রঙিন কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করতে চান তাদের জন্য প্রথম কয়েকদিন ট্রায়াল হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। কোন সমস্যা না হলে তখন ঐ ব্রান্ডের কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করা যেতে পারে।

যাদের চোখে পাওয়ার আছে তাদের জন্য প্রথমে সাধারণ কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করে- ২য় ধাপে রঙিন+পাওয়ার কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করা যেতে পারে।

প্রশ্নঃ অল্প আলোতে পড়লে কি চোখের ক্ষতি হয়?

উত্তরঃ অল্প আলোতে পড়লে চোখের কোন ক্ষতি হয় না। তবে কোনকিছু দেখা না গেলে, জোর করে পড়ার চেষ্টা করলে চোখের উপর চাপ পড়ে বা আইস্ট্রেন হয়। কিছুক্ষণ এভাবে পড়লে মাথাব্যথা বা চোখে ব্যথা হতে পারে। সুযোগ থাকলে স্বাভাবিক আলোতে পড়াশুনা করাই শ্রেয়।

প্রশ্নঃ আমার চোখে চশমা লাগলে কি আমার বাচ্চাদেরও লাগবে?

উত্তরঃ হ্যাঁ, অনেক ক্ষেত্রেই লাগতে পারে। বিশেষ করে আপনার যদি নিকট দৃষ্টি বা মায়োপিয়া থাকে তাহলে আপনার ছেলে-মেয়ে কারও কারও ঐ একই সমস্যা হতে পারে। আপনি যদি এমন কাউকে বিয়ে করেন যার আপনার মতই চশমা লাগে কিংবা আপনার বংশের কাউকে বিয়ে করেন তাহলে আপনাদের ছেলে-মেয়েদের চশমা লাগার সম্ভাবনা আরো বেড়ে যাবে।

———————–
ডাঃ এম নজরুল ইসলাম,
চক্ষু বিশেষজ্ঞ, বারডেম।
দৈনিক ইত্তেফাক, ০৩ মে ২০০৮

Share This
%d bloggers like this: